কিভাবে আপনার ইউটিউব এর জন্য ভালো নিস ঝুজে বের করবেন

কিভাবে ইউটিউব চ্যানেলের জন্য # নিশ খুজে বের করবেন?
অনলাইন জগতে ইউটিউব হচ্ছে ইনকামের একটি বৃহৎ সেক্টর। আপনি ইউটিউব কে ব্যবহার করে এডসেন্সএবং অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করার মাধ্যমে ইনকাম করতে পারবেন। বর্তমানে আমাদের দেশের অনেক ছেলে মেয়ে ইউটিউবকে ক্যারিয়ার হিসেবে নিয়েছে। কেউ অ্যাডসেন্সর মাধ্যমে ইনকাম করছে আবার কেউ ভিডিও প্রচার করে অ্যামাজন, click bank বা অন্যান্য অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং ওয়েবসাইটের পণ্য বিক্রয় করছে।
নতুনদের জন্য ইউটিউবে কাজ করার ক্ষেত্রে একটি বড় সমস্যা হল নিশ খুজে পাওয়া। আবার অনেকে নিশ খুজে পেলেও এমন নিশ নেন যার মাধ্যমে সাফল্য আসে না। তাই আজ আপনাদের জানাবো কিভাবে সহজেই নিশ খুজে পাবেন।
নোট – নিশ খোঁজার প্রয়োজন ঠিক তখনি পরে যখন আপনি ইউটিউব এর এডসেন্স এর মাধ্যমে উপার্জন করার কথা ভাবছেন। প্রোডাক্ট মার্কেটিং এর ক্ষেত্রেতো অবশ্যই আপনি ঐ প্রোডাক্ট নির্ভর ভিডিও বানাবেন।

  • ১. আপনার ইন্টারেস্টঃ

ইউটিউব-এ ভিডিও তৈরি জন্য সবচেয়ে সহজ নিশ হল আপনার ইন্টারেস্ট। আপনি যেই বিষয় গুলো ভালোবাসেন বা যেই বিষয়গুলো জানেন সেই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও তৈরি করুন। তাহলে সহজে অনেক ভিডিও তৈরি করতে পারবেন। তবে এক্ষেত্রে লক্ষ্য রাখতে হবে আপনার ইন্টারেস্টের যেন মার্কেটে চাহিদা থাকে। যেমন – এমন বিষয় নিয়ে ভিডিও বানালেন যেই বিষয় এর ভিডিও দেখতে মানুষ তার মূল্যবান সময় নষ্ট করে না, তাহলে আপনার কষ্ট ও সময় ব্যর্থ। তাই আপনার পছন্দ এর সাথে সাথে মার্কেটের চাহিদা সম্পর্কে আপনাকে ভাবতে হবে।

  • ২. সমস্যা এবং সমধানঃ

সমস্যা সকল মানুষেরই থাকে। আপনি যে কোন একটি সমস্যা নিয়ে ভিডিও তৈরি করতে পারেন এবং সেই সমস্যার সমাধান দিতে পারেন। যেমনঃ বিভিন্ন রকম স্বাস্থ্য জনিত সমস্যার সমাধান নিয়ে ভিডিও তৈরি করতে পারেন অথবা দৈনন্দিন বিভিন্ন রকম ছোট ছোট সমস্যার সমাধান নিয়েও ভিডিও তৈরি করতে পারেন।

  • ৩. নিউজঃ

ভিডিও তৈরি করার একটি অন্যতম সোর্স হল পৃথিবীতে ঘটে যাওয়া গুরুত্বপূর্ন সব নিউজ। এই ধরণের ভিডিও তৈরি করলে আপনি অনেক ভিউস পাবেন। সকল দেশ থেকে বড় বড় ঘটনার উপর সার্চ হয়, তাই অনেক আন্তার্জাতিক ভিউস পাবেন। কিন্তু মাথায় রাখতে হবে আরেক জনের ভিডিও ব্যবহার করা যাবে না বা কোন রকম এডিটিং এর মাধ্যমেও আরেক জনের ভিডিও এর রুপ পরিবর্তন করেও ব্যবহার করা যাবে না, করলে ইউটিউব অ্যাকাউন্ট ব্যান করে দিবে ।

  • ৪. অ্যামাজনঃ

অ্যামাজন শুধু পণ্য ক্রয় করার ওয়েবসাইট নয়। এটি হাজারো ব্যাবসায়ের আইডিয়া পাওয়ার একটি সাইট। তেমনি এখান থেকে ভিডিও তৈরির প্রচুর আইডিয়া পাবেন। যেমনঃ 2018 সালের বেস্ট সেলিং পণ্য নিয়ে ভিডিও তৈরি করতে পারেন, বর্তমানে অ্যামাজনে কোন পণ্যটি বেশি সেল হচ্ছে, অ্যামাজনের বিভিন্ন পণ্যের সর্ব নিন্ম এবং সর্বচ্চো মূল্য ইত্যাদি।

  • ৫. ট্রেন্ডীংঃ

যারা অনলাইন জগতে বেশি বিচরণ করে তারা প্রায় সবাই ট্রেডীং ভিডিও, ইভেন্তটস ইত্যাদি সম্পর্কে জানতে আগ্রহী থাকে। আপনার চ্যানেলের জন্য ট্রেন্ডীং বিষয়ের উপর ভিডিও তৈরি করতে পারেন। ট্রেন্ডীং বিষয় গুলো জানতে গুগল ট্রেন্ড, টুইটার ট্রেন্ড, ইউটিউব ট্রেন্ড, ইয়াহু ট্রেন্ড সম্পর্কে রিসার্চ করে নিতে পারেন। আইডিয়া পেয়ে যাবেন কোন টপিক নিয়ে কাজ করাটা ঠিক হবে এবং আপনার জন্য সহজ হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *