যে কারণে জনপ্রিয় channel জাজ মাল্টিমিডিয়া suspended হয়েছে

বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় এক চ্যানেলের নাম jaaz multimedia channel যা  হয়েছে
যে কারণে জাজের চ্যানেল বাতিল করল ইউটিউব!
দেশের অন্যতম প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার ইউটিউব চ্যানেল বাতিল করেছে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ। নীতি ভঙ্গের অভিযোগ তুলে চ্যালেনটি বন্ধ করা হয়েছে।
শনিবার থেকে চ্যানেলটি দেখা যাচ্ছে না। চ্যানেলের লিঙ্কে ইউটিউবের দেওয়া একটি বার্তা প্রদর্শিত হচ্ছে।
এতে বলা হয়, “স্প্যাম, প্রতারণামূলক আচরণ আর ভুল দিকে পরিচালিত করে এমন কনটেন্টের বিরুদ্ধে থাকা ইউটিউবের এক বা একাধিক নীতি বা অন্যান্য শর্ত লঙ্ঘনের দায়ে এই অ্যাকাউন্ট বাতিল করা হয়েছে।”
স্প্যাম, প্রতারণামূলক আচরণ আর ভুল দিকে পরিচালিত করে এমন কনটেন্টের বিরুদ্ধে সম্প্রতি জোরালো অবস্থান নিয়েছে বিনামূল্যে ভিডিও স্ট্রিমিং সাইট ইউটিউব। নীতিমালা লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলে ইউটিউব থেকে গত তিন মাসে বিশ্বের ৮৩ লাখ ভিডিও সরানো হয়েছে বলে বিবিসির খবরে জানা গেছে।
জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আবদুল আজিজের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি চ্যানেলটি বাতিলের তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তবে নির্দিষ্ট কোন ভিডিওর কারণে এটি বাতিল করা হয়েছে তা জানাতে পারেননি এ প্রযোজক।
গ্লিটজকে বললেন, “বিষয়টি নিয়ে আমাদের টেকনিক্যাল টিম কাজ করছে।”
বছর দুয়েক আগেও একবার বাতিল করা হয়েছিল চ্যানেলটি। কপিরাইট নিয়ে ঝামেলা হওয়ায় তখন বন্ধ করা হয়েছিল বলে গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানা গেছে।
গত বছরের মাঝামাঝির দিকে চ্যানেলটিতে প্রকাশিত ‘আল্লাহ মেহেরবান’ শিরোনামে একটি গান নিয়ে বিতর্কের ঝড় উঠেছিল অন্তর্জালে। গত বছরের ২৮ মে আইনজীবি মো. হুজ্জাতুল ইসলাম খান উকিল নোটিশ পাঠিয়েছিলেন জাজ মাল্টিমিডিয়ার প্রযোজক আবদুল আজিজ বরাবর।
উকিল নোটিশ পাঠানোর তিনদিনের মাথায় ভিডিওটি বাধ্য হয়ে চ্যানেল থেকে সরিয়ে নেয় জাজ মাল্টিমিডিয়া।
সূএ: জুম বাংলা
নোট: কাল থেকে আজ পর্যন্ত প্রায় 50 থেকে 60 টি ওয়েব সাইট ঘাটাঘাটি করছি চ্যানেলটি কি কারনে সাসপেন্ড হয়েছিল। তারপরে এই তথ্যটুকু নিয়ে আপনাদের সামনে হাজির হলাম আশা করি এতক্ষণে বুঝতে পারছেন।
credit : Nayem vai

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *